www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

হ্যাক পর্ব ১



এই ব্লগে গল্প কবিতা অনেকেই লিখেন কিন্তু এখানে যে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ আছে তাতে তেমন একটা লেখা হয়না পাঠক ও নেই। এ বিভাগটি চাঙ্গা করা দরকার। তাই আমি চিন্তা করেছি এখন থেকে হ্যাকিং নিয়ে লেখব, অবশ্যই যদি রেসপন্স পাই। প্রথমেই বলে নিই আমি কিন্তু ওরকম কোন হ্যাকার নই, যা জানি তাই শিখানোর বা জানানোর চেষ্টা মাত্র।
তাহলে আজ তোমাদের হ্যাকিং সম্পর্কে জ্ঞান দেই। প্রথম প্রশ্নঃ
হ্যাকিং কি?
হ্যাকিং হল কোন কিছুকে মডিফাই বা সংশোধন করা। যেমন তোমার কাছে একটা মাইক্রো ওভেন আছে তুমি তা দিয়ে রুম হীটার বানিয়ে ফেললেন অথবা ফ্রীজ দিয়ে এ.সি. এগুলোকে হ্যাকিং বলে। অবশ্য জানিনা আদৌ মাইক্রো ওভেন দিয়ে রুম হীটার বা ফ্রীজ দিয়ে এ.সি. বানানো সম্ভব কিনা!! আমি বোঝতে পারছি এসব কথা তোমাদের ভাল লাগছেনা। তোমরা জানতে চাও কম্পিউটার হ্যাকিং কিভাবে করে।
এ জন্য তোমাদের প্রথমে জানতে হবে হ্যাকার কী বা কে?
হ্যাকার হচ্ছে এমন ব্যাক্তি যে ইলেক্ট্রনিক্স বা কম্পিউটার সিস্টেম নিয়ে চিন্তা করে বা করতে ভালবাসে!! কম্পিউটার সিস্টেম কিভাবে কাজ করে আর কিভাবে আরো ভাল করা যায় তা নিয়ে চিন্তা করে।

হ্যাকার মূলত ২ প্রকারঃ
১>White Hat(সাদা টুপি)
২>Black Hat(কালো টুপি)
এছাড়া ও আরো এক প্রকার হ্যাকার আছে এদের বলে Gray Hat hacker . বোঝতেই তো পারতেছেন ছাই কালারের টুপি অর্থাৎ সাদা আর কালোর মধ্যে এরা সুবিধাবাদী, যেমন ধরেন লীগ আর ছাত্রদল দুইটাই করে যখন যেটা দরকার।

এখন বলি ২ প্রকারের কার কি কাজঃ
১>White Hat(সাদা টুপি): এদেরকে ভাল মানুষ হিসাবে ধরা হয়। তারা বেআইনি কাজে তাদের দক্ষতা ব্যাবহার করেনা। তারা সাধারনত কালো টুপির আক্রমনের হাত থেকে মানুষকে রক্ষা করে।
২>Black Hat(কালো টুপি): এদেরকে খারাপ হিসাবে ধরা হয়। তারা সাধারনত ব্যক্তিওত স্বার্থে দূষিত কাজে তাদের দক্ষতা ব্যাবহার করে। তারা ব্যাঙ্ক,ক্রেডিট কার্ড ইত্যাদি চুরি বা হ্যাক করে;ওয়েব সাইট নষ্ট করে।
এই শব্দ দুটি পুরানো ওয়েস্টার্ন ছবি থেকে এসেছে, যেখানে ভাল মানুষ সাদা টুপি আর খারাপ লোক কালো টুপি পড়ত।

এখন Black Hat শুনেই যদি মনে হয় "শালার Black Hat শুনতেই তো রক্ত গরম হয়ে যায়" তাদেরকে বলি; তোমার টাট্টির(টয়লেট) সমান এক সেলে আরো কোন গুন্ডা বদমাসের  *** **** বছরের পর বছর জেলে থাকতে কি ভাল লাগবে?

হ্যাকার শ্রেণীক্রমঃ
এরকম হ্যাকারদের আবার ৩ ভাগে ভাগ করা যায়, এখন সে যে কোন প্রকারের হ্যাকারই হোক না কেন।

১>স্ক্রিপ্ট kiddies: kiddies মানে তো বুঝতেই পারছ। এরা হল হ্যাকার হতে চায় এমন মানুষ।  হ্যাকার কমিউনিটিতে তাদেরকা একটু অবহেলা করা হয়, কারন এরা মূলত মানুষের চোখে হ্যাকিং ব্যাপারটাকে খারাপ বানানোর জন্য দায়ী। তাদের আসলে কোন দক্ষতা থাকেনা শুধু প্রফেশনাল হ্যাকারদের বানানো টুল্‌স ব্যাবহার করে, এমনকি টুল্‌সগুলো কিভাবে কাজ করে তাও জানেনা।
২>Intermediate hackers(অন্তর্বর্তী হ্যাকার): এই সব লোক কম্পিউটার আর নেটওয়ার্ক সম্পর্কে জানে আর তুলনামূলক যথেষ্ট পরিমান প্রোগ্রামিং জ্ঞান রাখে স্ক্রিপ্ট বোঝার মত। তবে তারা ও স্ক্রিপ্ট কীডিদের মত টুল্‌স ব্যাবহার করে। তবে টুল্‌স কিভাবে কাজ করছে তা জানে এবং দরকার মত মডিফাই ও করতে পারে।
৩>এলিট হ্যাকারঃ এরা হচ্ছে সবচাইতে দক্ষ হ্যাকার। তারা হ্যাকিং টুল বানায় স্ক্রিপ্ট লেখে আর বিভিন্ন এক্সপ্লয়িট(দূর্বলতা) খোঁজে বের করে। তোমাওরা যদি শিখতে চাও তবে শেষ পর্যন্ত এই জায়গায় আসার চেষ্টা করতে হবে, আমিও করছি।

তোমাদের যা জানা আছে এখানে শেয়ার করতে পারো আর আমি এখন থেকে ধাপে ধাপে এ বিষয়ে আরো লিখব অবশ্যই যদি ভাল পাঠক পাই।
বিষয়শ্রেণী: তথ্যপ্রযুক্তি
ব্লগটি ৮১৯ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ০৩/১১/২০১৩

মন্তব্যসমূহ

  • সৌমিতা ০৬/১১/২০১৩
    সুন্দর প্রচেষ্টা ।।
  • জহির রহমান ০৪/১১/২০১৩
    হ্যাকিং শেখার শখ অনেক দিনের। এবার মনে হয় শেখার একটা সুযোগ সামনে এসেছে। দাদা ভাই, আপাতত এ পর্বে কোন প্রশ্ন খুঁজে পাচ্ছিনা। তাই ধন্যবাদ আর শুভেচ্ছা সহ পরবর্তী পর্বের জন্য অপেক্ষা করছি। প্লিজ... দেরি করবেন না।
    শুভকামনা
    • ধন্যবাদ আপনার আগ্রহ দেখে ভাল লেগেছে। তাই একটা কথা বলে রাখছি; হ্যাকিং কোন ম্যাজিক নয় আর তা শিখার কোন শর্ট-কাট সিস্টেম ও নাই। প্রথমে বেসিক জিনিস বুঝে নিলে পরবর্তিতে নিজেই সব করতে পারবেন আর প্রথমেই অ্যাডভান্স হতে চাইলে সত্যিকার কিছু শিখা যায়না।
      • জহির রহমান ০৪/১১/২০১৩
        হুম। একদম ঠিক বলছেন। কিন্তু আমি শিখতে চাই... ফ্রি ফ্রি শিখতে চাই।
        • আস্তে আস্তে দিব লিখতে অনেক প্রস্তুতি লাগে তো তাই। আর আমি নিজে সব কিছু ফ্রীতে বিশ্বাসী
          • জহির রহমান ০৪/১১/২০১৩
            তাইলেতো আর কোন কথাই থাকলোনা! আবার ভয়ও হয়... খুব!
  • সাখাওয়াৎ ০৪/১১/২০১৩
    ওয়াও দারুণ!!!! খুব ভালো লাগলো নতুন কিছু জেনে।যদিও আমি এইসব নিয়ে তেমন ভাবি না।কিন্তু আমি কিছু পড়েছি আগে এইসব নিয়ে।তবে আপনার লেখাটা খুবই সহজ সরল হয়েছে।যা সহজেই পঠকদের মনে ধরবে।ধন্যবাদ লেখার জন্য।
  • ইসমাত ইয়াসমিন ০৪/১১/২০১৩
    ভাল লাগলো।
 
Quantcast