www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

দীর্ঘ কবিতা- কাঁটা- পৃষ্ঠা ৫

কাঁটা



তাহলে দেবই কী নাটের গুরু।
নেহাকে জেরা করেই নতুন পর্ব হোক শুরু।।
অতুলের মৃত্যুশোক নেহার ঝলমলে জীবনে এনেছে কালো ছায়া।
ওর মা বাবা, মিস্টার ও মিসেস গুপ্তা, হারিয়েছেন প্রাণের হিয়া।।
বোঝাই যায়- নেহা বাঁচতে চাইতো অতুলকে নিয়ে।
গুপ্তা পরিবারের কাছে হবু জামাই প্রিয় নিজের ছেলের চেয়ে।।
নেহা দেবের সম্পর্ক আজ মহাশ্মশান, অতুল কোকিল হয়ে ডেকেছিল কুহু।
তবুও ভোগের লিপ্সায় অন্ধ মানুষ বারবার বাড়াতো বাহু।।
নম্বর পরিবর্তন করে ফোন আসতেই থাকতো।
নেহা বললো, 'অতুল আমার প্রাণ, দেব মৃত'।।
প্রযুক্তি এখন হাতের মুঠোয়, ফেসবুকে দেখলো দেব পরিষ্কার।
অতুল নেহার যুগল মূর্তি- গর্জে উঠলো সমুদ্রের এপার ওপার।।
এইবার শুরু হলো খেলা জীবন নিয়ে, ক্রিকেট নয়, ফুটবল নয়।
দেব বললো, 'আমি নেহাকেই চাই, আর কারোকে নয়, ভগবানকে করিনা ভয়'।।
ছক কষে সরিয়ে দেবে অতুলকে, করলো পণ।
শ্রুতি ওকে চাইতো খুব, ও চায়নি তাকে, জানতো জনগণ।।
যেমন কথা, তেমন কাজ, সরিয়ে দিলো পথের কাঁটা।
ভাবলো না একবারও আইনের কথা, এমনই বোকা পাঁঠা।।
পুলিশ বুজতে পারলো কোথায় লেগেছে আগুন।
সব জট খুললো বলে, বুড়ির চুল হাওয়ায় উড়বে এখন।।
কাঁটা দিয়েই কাঁটা তুলতে হয়- এটাই রীতি নীতি।
পুলিশই জানে খুনির মতি গতি প্রকৃতি।।

(চলবে)
বিষয়শ্রেণী: কবিতা
ব্লগটি ৩৬ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ০৮/১১/২০১৯

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

 
Quantcast