www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

উপন্যাস রায়্যানঃপার্ট ২

হেই ট্যাক্সি থাম! রিয়ানা হাউস যাব।
ফোনটা বেজে উঠল
হ্যালো কে?
ড. সমরেশ বলছি।
হ্যাঁ বলুন।আমি আসছি।আর দশ মিনিট লাগবে।হি হি হি।আপনাকে অত্যন্ত কষ্ট আর বিনয়ের সাথে জানাচ্ছি সেমিনারটা দশ মিনিট আগে ক্যান্সেল হয়ে গেছে।আপনাকে আর কষ্ট করে আসতে হবে না।

কি পেয়েছেনটা কি আপনি? আরেকটু আগে জানাতে পারলেন না ।

আপনি এমন ব্যবহার করছেন কেন ?বিজ্ঞানী মহলে আপনি একা পরিচিত না।তাই ভদ্র ব্যবহার করুন ।আপনার মতো নিতান্ত অসভ্য মহিলা আমি খুব কম দেখেছি।

রাগে গজগজ করতে লাগলেন মিসেস বাসু।লোকটা একটা ইডিয়েট!নইলে এমন কেউ করতে পারে।হর্তাকর্তাদের পা চেটেই তো আছে।এখন আমার পেছনে লাগতে এসেছে অসহ্য!

হেই ড্রাইভার , গাড়ি ঘোরাও।স্ট্রিটডার্মে যাব।উফ কত দেরি হয়ে গেল।টনি,টনি ,কোথায় তুমি?

ঘেউ ঘেউ।

ওহ আজ আমার ফিরিতে দেরী হয়ে গেল।অ্যালেক্স ,অ্যালেক্স,মিস বাসু ডেকে উঠলেন।
লম্বা করিডোরের পাশের ঘর থেকে একটা রোবট দ্রুত বেরিয়ে এল ।তার লোহার মতো শরীর, চোখগুলো ঠেকে সোনালী আভা বের হয় না।মনে হয় সে বুঝি সত্যিই মানুষ!
শুভ সন্ধ্যা মিস বাসু।আমরা এতক্ষণ আপনার জন্যই অপেক্ষা করছিলাম।টনি খুব চিতকার করছিল ।
আমি আপনার জন্য কি করতে পারি?
আপনি কি এক গ্লাস জল খাবেন? আপনাকে খুব চিন্তিত দেখাচ্ছে!

ওয়াও !তুমি দারুণ বলছ অ্যালেক্স একজন। মানুষের মতোই তুমি আমাকে সহানুভূতি দেখাচ্ছ ।তোমাকে যেদিন বিশ্বের সামনে তুলে ধরব সেদিন কি হবে আমি সত্যিই রোমাঞ্চিত !নিশ্চই তুমি জনপ্রিয়তার তুঙ্গে উঠবে ।

আপনাকে ধন্যবাদ।

হা হা হা।দারুণ দারুণ!বলতে থাক।জান অ্যালেক্স আমি কোনোদিন ভাবিনি বিজ্ঞানী মহলে এতটা জনপ্রিয়তা পাব।যদি দশ বছর আগে নিজের সিদ্ধান্তে অটল না থাকতাম তাহলে হয়ত............
থাক বাদ দাও রান্না করেছ?
হ্যাঁ মিস বাসু আপনি খাবেন এখন?
নাহ একটু একা থাকতে চাই। চলো তোমাকে অফ করে দেই।
ঠিক আছে আপনার খুশি। তবে আমার চার্জ এখনো আছে। আগামী দুইদিন পর্যন্ত আপনি আমাকে অনায়াসে চালাতে পারেন।

আমার হাতে গড়া যন্ত্র আমাকেই শেখাচ্ছে।এত দেখি চোরের উপর বাটপারি!
নাহ তুমি রায়্যানের মতো বেশ বড় বড় কথা বল।তোমার প্রোগ্রামটা দেখি না পাল্টালে চলছে নাহ।মিস বাসু অ্যাালেক্সকে অফ করে দিলেন ।টোনি বারান্দায় বসে আকাশের দিকে তাকিয়ে আছে হয়ত মায়ের কথা মনে পড়েছে। বেচারা! কত নির্দয় হলে এমন লক্ষ্মী বাচ্চা কুকুরকে ছেড়ে যেতে পারে।কিছু কিছু প্রাণীদের বোধশক্তি নেই কেন?

মিসেস বাসুরও কেন জানি মন খারাপ হয়ে যাচ্ছে। কেন জানি কিছুই ভালো লাগছে নাহ ।কেন ভালো লাগছে নাহ তার কোনো সদুত্তর নেই... জীবনের কষ্টের দিনগুলি তো তিনি পার করেই এসেছেন। এখন তো সব ভালো, সুন্দ্‌ নতুন সূর্যোদয় !তবে কি তিনি অতীতের কথা ভেবেই কষ্ট পাচ্ছেন ??যদি একটু সুন্দর হতো আরেকটু সহজ হতো তাহলে হয়তো মরতে মরতে বাঁচতে শিখতে হতো নাহ!! কি জানি বাবা মানুষের মন বড়ই বিচিত্র ।একটা সময় ভাবতে ভাবতে ঘুমিয়ে গেলেন।

মনিবের ক্লান্ত চোখের কালিটা হয়ত টোনিকে আকর্ষণ করল।পরম স্নেহে ঘুমন্ত মনিবের কোলটা দখল করে বসল।হয়ত একটু পর সেও ঘুমিয়ে পড়বে।

শুধু,শুধু জ্যোস্নাবিহীন নিকষ অন্ধকারের একখণ্ড হিমশীতল বাতাস তাদের অজানা বিভীষিকাকে সান্তনা দিয়ে গেল.......
বিষয়শ্রেণী: গল্প
ব্লগটি ২৯৩ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ২৬/০৯/২০২১

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

 
Quantcast