www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

ব্যাংঙ্গের ডাক (রুপকথার কৌতুক)


অনেক অনেক দিন আগের কথা।
তখন ব্যাঙ্গেরা ডাকতে জানতো না।
ওরা একটি ভিন্ন ভাষায় কথা বলতো।
সেই যুগে একটি বিধবা ব্যাঙ্গ ছিলো আর তার ছিলো একটা ছেলে। ছেলেটা ভিষন দুষ্ট। বিধবা মায়ের কোনো কথাই সে শুনতো না। ডানে যেতে বললে বায়ে যেতো আর বায়ে যেতে বললে যেতো ডানে। এভাবেই চলতো তাদের  জীবন। বিধবা বৃদ্ধ হয়ে যায়। মরার চিন্তা চলে আসে। সে চিন্তা করে তার ছেলে তো সব উল্টা পাল্টা কাজ করে তাহলে তো সে মারা গেলেও তার ছেলে তার লাশ পানিতে বা উল্টা পাল্টা কোনো জায়গায় ফেলে রেখে দিবে। তাই সে বুদ্ধি করে ছেলেকে বলবে তার মৃত্যুর পর যেনো তার লাসটি পাশের খালে পানিতে কবর দেওয়া হয় তাহলে তার ছেলে উল্টো তার লাস ডাঙ্গায় মাটিতে কবর দিবে।এর কয়েকদিন পরে বিধবা ব্যাংটি মারা যায়। ছেলে ব্যাং তার মায়ের লাস কবর দিবে। তখন হঠাৎ তার মায়ের কথা মনে পরে। মা তার লাশটি পাশের খালের পানিতে কবর দিতে বলেছিলো। সে চিন্তা করে বেচে থাকতে মায়ের কোনো কথাই রাখি নাই। আজ মা নেই কমপক্ষে মায়ের শেষ কথাটা রাখি। তাই সে মায়ের কখা মতো পানিতে কবরের ব্যাবস্থা করলো। কিন্তু কিছুক্ষন পরে বর্ষার ঢেউ এসে মায়ের লাশ ভাসিয়ে নিয়ে গেলো। আর তখন ছেলে ব্যাংটি নিজের অজান্তেই ঘেংর ঘ্যাং ডাকতে শুরু করলো সেই থকেই ব্যাংঙ্গের ডাক হলো ঘ্যাংর ঘ্যাং।
নিজস্ব প্রতিবেদক।
বিষয়শ্রেণী: কৌতুক
ব্লগটি ১১৬৮ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ০১/১০/২০১৪

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

  • তরুণ কান্তি ০৪/০৭/২০১৮
    বেশ বেশ।
  • আবু সাহেদ সরকার ০২/১০/২০১৪
    সুন্দর লাগলো পড়ে। তবে মাঝে মধ্যে ব্যাং, ব্যাংঙ্গ ব্যবহার করেছেন বুঝলাম না।
  • সহিদুল হক ০১/১০/২০১৪
    বেশ মজার।
 
Quantcast