www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

মিনসের যা যোগ্যতা

অনেক বয়সে বিবাহ করলো গিট্টু। বছর না যেতেই সে এক কন্যার বাবা হলো। কিন্তু মনে তার ইচ্ছা পুত্রের বাবা হবে। সেই অভিপ্রায়ে পরবর্তী বছর আবার এক কন্যার বাবা হলো। তখন সে মনে মনে ভাবলো, এবার হয়তো পুত্রের বাবা হবে সে। আবার কন্যার জনক। অবশেষে গিট্টু সিদ্ধান্ত নিলো স্ত্রীকে তালাক দিবে।

স্ত্রী তার যেন তেন নয়। কোর্টে মামলা হল। বিচারক বিচার কাজ শুরু করলেন। গিট্টুকে তিনি প্রশ্ন করলেন,
" আচ্ছা আপনি আপনার স্ত্রীকে কেন তালাক দিবেন?"
গিট্টু জবাব দিলো-
" বড় আশা করেছিলাম পুত্র সন্তানের পিতা হবো, অথচ এই মহিলা শুধু কন্যার জন্ম দেয়, তাও আবার একে একে তিনটি কন্যা, আমার মনে এই মহিলার সাথে থাকলে আমি কোনদিন পুত্রের বাবা হতে পারবো না, তাই আমি তাকে তালাক দিতে চাই"

বিচারক এবার তার স্ত্রীকে জিজ্ঞাসা করলেন-
" আপনার স্বামী আপনাকে তালাক দিতে চাই, এ ব্যাপারে আপনার অনুভূতি কি?"

তার স্ত্রী জবাব দিলো-
"অনুভূতি ? তাও ভালো আমি তো তিন কন্যার জন্ম দিয়েছি, যদি মিনসের আশায় থাকতাম, তবে তিন কন্যার মুখটাও দেখতে পেতাম না।"

গিট্টুর স্ত্রীর জবাব শুনে বিচারক বেচারি সেই হা করে তাদের দিকে চেয়ে রইলেন, তার হা করা মুখটা আজো হা করাই আছে।
বিষয়শ্রেণী: কৌতুক
ব্লগটি ৩১৫ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ১৯/০১/২০১৯

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

 
Quantcast