www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

আসুন নায়িকাদের জন্য কাপড় খয়রাত করি

আসুন, সিনেমার নায়িকাদের জন্য ত্রাণ হিসাবে এক টুকরা কাপড় খয়রাত করি। উনারাও বন্যার্তদের মত কাপড়ের দুর্ভিক্ষে ইজ্জত ঢাকতে পারছেন না!!

সিনেমা দেখি না ঠিক, কিন্তু মিডিয়ার সুবাদে সিনেমা জগত সম্পর্কে খোজখবর রাখি। দেয়ালে সাঁটানো সিনেমার বিজ্ঞাপনের পোস্টারগুলো এতটাই অশ্লিল যে, লজ্জায় মরে যাওয়ার দশা। নায়িকাদের নিম্নাঙ্গে আর উর্ধাঙ্গে দু’চিলতে কাপড় ছাড়া আর কিছুই নেই। মনে হয়, দেশে যেন কাপড়ের দুর্ভিক্ষ চলছে। কাপড়ের অভাবে সুন্দরীরা লজ্জা নিবারণ করতে পারছে না। সেন্সরবোর্ড কর্তৃপক্ষের কাছে প্রশ্ন, জনগণের টাকায় বেতন দিয়ে আপনরাদের কেন ওখানে বসানো হয়েছে? অশ্লিল সিনেমাগুলো কি সেন্সরবোর্ডের ছাড়পত্রহীন? তথ্যমন্ত্রনালয় কিভাবে এ সিনেমাগুলোর অনুমোদন দেয়? নাকি লাম্পট্য সিনেমা আপনারাও উপভোগ করছেন? নাকি ওনারা বাঙ্গালী মুসলিম জাতিকে অসভ্য, চরিত্রহীন ও ধর্ষক জাতিতে পরিণত করার ঠিকাদারী হাতে নিয়েছেন?

নায়িকা ও পতিতার মধ্যে কি পার্থক্য? একজনে দেহের বিনিময়ে খর্দ্দের টানে, আরেকজন টানে দর্শক। বরং পতিতারা আড়ালে শালীনভাবে পতিতাবৃত্তি করছে, আর কথিত নায়িকারা প্রকাশ্যে পতিতাবৃত্তি করে যুবসমাজকে লাম্পট্য বানানোর রিহার্সেল করছে। আসলে পতিতার ডিজিটাল ভার্সন হচ্ছে, “নায়িকা”। ‘নায়িকা’রা পতিতার থেকেও অতি নিকৃষ্ট জাত। উনাদের কাছে নাকি নগ্নতা মানেই অশ্লিলতা নয়। হ্যাঁ, আমিও তাই বলি “নগ্নতা মানেই অশ্লিলতা নয়”। কারণ রাস্তা-ঘাটে অনেক পাগল ঘোরে নগ্ন-অর্ধনগ্ন হয়ে। নিঃসন্দেহে এটা অশ্লিলতা নয়। উলঙ্গ হয়ে সিনেমা করা যদি অশ্লিলতা না হয়, তবে প্রশ্ন হল- আপনাদের কাছে অশ্লিলতার সংজ্ঞা কি?
বিষয়শ্রেণী: সমসাময়িক
ব্লগটি ৩৫৭ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ২৫/০৮/২০১৭

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

  • মোনালিসা ২৬/০৮/২০১৭
    ভাল ছিল
  • কথা সত্য,সংস্কৃতির সঙ্গে অপ কথাটি যুক্ত হয়েছে।
  • আব্দুল হক ২৬/০৮/২০১৭
    সত্য সুন্দরের আরাধনা!
  • এম এম হোসেন ২৫/০৮/২০১৭
    সত্য
  • সুশান্ত বিশ্বাস ২৫/০৮/২০১৭
    সঠিক কথা
 
Quantcast