www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

রক্তমাখা পোশাক

রাব্বি এক অনাথ ছেলে।ছোটবেলায় মা-বাবা মারা যান।জীবন সংগ্রামে জয় পরাজয় তো আছেই।ছোটবেলা থেকেই কখনো টোকাইয়ের কাজ,কখনো চায়ের দোকানে কাজ করে টাকা রুজি করে পেট চালায়।রাত যখন গভীর হয় তখন সে উঠে বসে।রেলস্টেশনের একটা জায়গায় ঘুমায় সে।তখন মনে পড়ে মা-বাবার কথা।মায়ের মুখখানা ভেসে উঠে চোখের সামনে।নিজের অজান্তেই চোখে পানি চলে আসে।ভোরে উঠে কাজের সন্ধানে যেতে হবে।কোনো কোনোদিন উপোস থাকে।কাজ পায়না।
একদিন কাজ না পেয়ে আনমনে বসে আছে রেললাইনের ধারে।হঠাত দেখতে পেল একজন স্বামী তার গর্ভবতী স্ত্রীকে নিয়ে রেললাইন পার হচ্ছেন।মহিলাটার অনেক কষ্ট হচ্ছে।স্বামী তাকে ধরে নিয়ে যাচ্ছে।হটাত ওপাশ থেকে ট্রেনের সাইরেন শোনা গেল।রাব্বি চেয়ে দেখল মহিলাটার পা রেললাইনে আটকে গেছে।ওদিকে ট্রেন দ্রুতগতিতে আসছে।রাব্বি দৌড়ে গেল।মহিলাটার প্রচন্ড কষ্ট হচ্ছে।রাব্বি মহিলাটার পা রেললাইনের ভেতর থেকে ছাড়াতে লাগল।ট্রেন কাছে চলে আসছে।রাব্বি প্রাণপণে চেষ্টা চালাচ্ছে।ট্রেন কাছে আসতেই মহিলাটার স্বামী একপাশে সরে গেল।আর গর্ভবতী মহিলার পা ছুটে গেল।সেও পাশে ছিটকে পড়তেই তার স্বামী তাকে আঁকড়ে ধরল।কিন্তু রাব্বি সেখানেই আটকে রইল।দ্রুতগতির ট্রেন তার দেহ ছিন্ন-বিচ্ছিন্ন করে দিল।তার কোনো আক্ষেপ নেই কেননা সে দুটি জীবন বাঁচিয়েছে।গর্ভবতী মহিলা আর তার বাচ্চাকে।এই বাচ্চাটি তার জন্য প্রাণ পেল।জন্মের পরে মা-বাবার আদরে বড় হবে।সে অনাথ থাকবেনা রাব্বির মত।এতেই রাব্বি খুশি।সবাই চলে গেছে।ট্রেন তার গতিতে চলছে বহুদুর।শুধু রেললাইনে পড়ে আছে রাব্বির রক্তমাখা পোশাক।
বিষয়শ্রেণী: গল্প
ব্লগটি ১০৮ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ১৬/০২/২০২০

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

 
Quantcast