www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

আমেনা ওরফে এভ্রিল -প্রতারণা নাকি নারীবাদ

আপনি নারীবাদী?এই প্রশ্নটির উত্তর যদি হ্যাঁ হয় তবে আপনাকে সাধুবাদ জানাই।আপনি নারীবাদে বিশ্বাস করেন এটা ভাল তবে অন্ধ নারীবাদে বিশ্বাসী হওয়াটা কখনো সুখকর নয়।কোন চোর যদি চুরি করে এসে ধর্মের কথা বলে তবে তাকে ধার্মিক বলাটা আপনার চয়েজ নয়।বর্তমানে দেশে একটা টপিকে সবাই নিজেকে উজাড় করে দিচ্ছে।তার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে এভ্রিল নামের একটা মেয়ে।কেউ তাকে বেগম রোকেয়া বানাতে ব্যস্ত আবার কেউ তাকে নায়লা নাঈম বানাতে উঠে পড়ে লেগেছে।যদি তাকে রোকেয়া বানাতে চান তবে আপনি ভুলের ভেতর আছেন।একজন মিথ্যুক ও প্রতারক কখনো বেগম রোকেয়া হতে পারেন না।নিজের নাম নিয়েই যে লজ্জ্বিত তাকে কীভাবে বেগম রোকেয়া বানাচ্ছেন সেটা বোধগম্য নয়।অনেকে এভ্রিলের বিপ্লবী জীবনকে তুলে ধরছেন।অথচ একটিবারও কি যাচাই করে দেখেছেন তার জীবন কতটা বিপ্লবী?নাকি তার প্রয়োজন হয়নি?মেয়েটা দাবী করলো সে বাল্যবিবাহের শিকার।তার দাবী তখন সে ১৬ বছরের বালিকা ছিলো।অথচ তার কাবিননামাতে বয়স ২৩ দেখানো হয়েছে।[তথ্যসূত্র,প্রথম আলো]বাংলাদেশে বিবাহের জন্য যেখানে ১৮ বছর বয়সকে প্রাপ্তবয়স্ক ধরা হয় সেখানে ২৩ কেনো করা হলো?এটা রহস্যজনক।অথচ বাল্যবিবাহের কথা বলে আমার আপনার মতো হাজারো বাঙালির আবেগকে কাজে লাগিয়ে সে নিজের সহানুভূতি খুঁজছে।নারীবাদকে কাজে লাগাচ্ছে।ভেবে দেখেছেন?মিডিয়াতে কান্নাকাটি করে আমাদের আবেগকে ব্যবহার করছে।আমেনা ওরফে এভ্রিল চতুর বটে।নিজেকে বাইক রাইডার বানিয়েছে।নিজেকে পরিবর্তন করেছে।এটা প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য।তাই বলে একে নারীবাদে ফেলতে পারেন না।সে বিবাহিত বা ডিভোর্সি যাই হোক সেটা গোপন রেখে সে কি নারীবাদ জাহির করলো সেটাও বোধগম্য নয়।যে মিথ্যাকে ভিত্তি হিসেবে ধরে নেয় তার আর যাই হোক ব্যক্তিত্ব বলে কিছু নেই।অথচ কিছু মেয়ে তাকে আইডল ভাবতে শুরু করেছে।নব যুগের রোকেয়া পেয়ে তারা রীতিমতো উচ্ছ্বাসিত।সে একটা কোম্পানীর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর।সে ইচ্ছা করলে সেখান থেকেই বাল্যবিবাহ নিয়ে কাজ করতে পারতো।কিন্তু তাকে এই প্লাটফর্মে এসে বিতর্কিত হওয়ার পর কেনো বাল্যবিবাহ নিয়ে কাজ করার কথা বলতে হলো?নারীবাদী সিম্পেথি কাছে টানার জন্য নয় তো!আপনি একবার ভেবে দেখেন,তার মিথ্যা তথ্যের কারণে একটি মেয়ে সেরা দশে আসা থেকে বঞ্চিত হয়েছে।এমনও হতে পারতো সেই মেয়েটিই হতো মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ! তবে যেটা হয়নি সেটা বলে তো লাভ নেই।তার বেগম রোকেয়া সাজাটা বা সাজানোটা আমাদেরকে বিস্মিত করেছে।
আর যারা তাকে নায়লা নাঈম বলছেন তারা তার চরিত্র নিয়ে দোষারোপ করছেন যেটা ঠিক নয়।একজন চরিত্র নিয়ে কথা বলার ক্ষমতা আপনাকে কে দিয়েছে?নাকি নিজেই নিজের ক্ষমতা তৈরী করে নিয়েছেন?তার কিছু ছবি ইতিমধ্যে অনলাইনে ভাইরাল হয়েছে।সেগুলো তার ছবি কিনা জানি না।তারপরও তাকে হেয় করা কাম্য নয়।সে মিথ্যার উপর ভর করে প্রতিযোগীতায় টিকে ছিলো এটা নিয়ে আপনি কথা বলতে পারেন তাই বলে কোন নারীকে এভাবে উপস্থাপন করা কোনো সভ্য মানুষের কাজ নয়।
পরিশেষে,এই মেয়েটি আর যাই হোক নারী জাতির প্রতিনিধি নয়।

- কামরুজ্জামান সাদ
বিষয়শ্রেণী: সমসাময়িক
ব্লগটি ২৮৩ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ০৫/১০/২০১৭

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

  • ঠিক বলেছেন।
  • Tanju H ০৬/১০/২০১৭
    ভালো বলছেন।।
  • সাঁঝের তারা ০৫/১০/২০১৭
    ঠিক বলেছেন - যত যা কিছু হোক কোন নারীকে নিয়ে এভাবে বলা ঠিক নয়। মিথ্যা কে না বলে? সেও বলেছে - কিন্তু তার শাস্তিও তো সে পেয়েছে। এনিয়ে আরও কথা কেন? শুভেচ্ছা ...
  • আজাদ আলী ০৫/১০/২০১৭
    Khub valo katha bolechen.
 
Quantcast