www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

নক্ষত্র কথন

পথভুলে এসে পড়ি নক্ষত্রের মেলায়
কত যে আলোর পসরা
কত যে রূপের মহড়া
এ মেলার পরতে পরতে সাজানো।

আলো ঝরে পড়ে চুলের উপরে,
গুড়ো গুড়ো আলোর কুচি, ঝুলতে থাকে
নতুন রঙে চুলের অরণ্যে
বিমুগ্ধতায় ডুব দিয়ে দেখি অপরূপ বিস্ময়কে।

নক্ষত্রের আলোকচ্ছটাকে পরাস্থ করে
নক্ষত্রের পাশ দিয়ে অক্লেশে হেঁটে এসে
আয়েশ করে বসি পৃথিবীর কোন পার্কের বেঞ্চে,
ছড়াই সময়ের আস্তিন;কত ফেরীওয়ালা-
বাদাম ওয়ালা-সিগারেটওয়ালা
এসে হাঁক দিয়ে যায়-আসে চা বা কফি
আর হালে পানিওয়ালা-
       এই.........পানি.......পানি........
আমি নুব্জ্য হয়ে বসে ভাবি
এভাবেই কি টানতে হবে আনন্দহীন
সংসারের পুরস্কারহীন ঘানি!
নক্ষত্রের আলোর ছটা ফিরে আসে ভিতরবাড়ী
নিমেষেই ‍করে দেয় চুরমার;

বিষন্নতায় ডুবে যাই অজান্তে
ফিরে যাই অনন্ত নক্ষত্রমালায়।

পৃথিবী থেকে দূরে, কোলাহলহীন
অপ্রত্যাবর্তনীয় দুরত্ত্বে
নৈঃশব্দে ভরা কথকতায়, মেতে উঠি
নক্ষত্রের সাথে-নক্ষত্র কথন।

[মূল লেখাঃ ০২-০৫-২০০৮, শুক্রবার, ১ম প্রহর, ঢাকা]
বিষয়শ্রেণী: কবিতা
ব্লগটি ৩৩৮ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ৩০/১১/২০১৫

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

  • কিশোর কারুণিক ০১/১২/২০১৫
    ভাল
  • খুব ভালো।
  • অভিষেক মিত্র ০১/১২/২০১৫
    দারুণ!
  • হাসান কাবীর ০১/১২/২০১৫
    চমৎকার হয়েছে,লিখে যান।
  • আয়নাল ভাই ০১/১২/২০১৫
    অনেক ভালো লাগলো ভাই
  • ভালো লাগলো দাদা।
    • দাদা বললেন কী অর্র্থে? বড়ভাই? বয়স? নাকি শুধুই বোলচাল। আমার ছোট ফুপু (বর্তমানে নেই) আমার বাবাকে দাদা বলতেন। এটা তেমন নয় তো!
      অনেক শুভেচ্ছা ও শুভ দুপুর।
      • ধরে নিতে পারেন - বোলচাল। সাথে কিছু শ্রদ্ধা, ভালোবাসা আছে। যদি আপনার আপত্তি থাকে তবে বলবো না।

        ধন্যবাদ।
        • যা খুশি বলতে পারেন, নেই কোন মানা।
 
Quantcast