www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

অন্তিম অনুভব

ফজরের নামাজ শেষে হাঁটতে বেরিয়ে পরা আমার পুরনো অভ্যাস। অনেক দিন পর আজ হঠাৎ করে হাঁটতে বের হলাম।তখনো চারপাশে তেমন আলো ফুঁটে ওঠেনি। তার উপর কুয়াশাচ্ছন্ন আকাশ আশেপাশে কিছুই দেখা যাচ্ছে না।শুধু নিজেকেই দেখতে পাচ্ছি যেন অশরীরী কোন আত্মা মেঘময় ধুয়ার মাঝে নিস্তব্ধ হেঁটে চলেছে। দূর থেকে মনে হচ্ছিল সামনে কোন এক হিমালয় দাঁড়িয়ে আছে। এত বড় হিমালয় ইট পাথরের শহরে কোথা থেকে আসলো? ভাবতে ভবতে সামনে অগ্রসর হচ্ছি।যতখনে আবিষ্কার করলাম এটা কোন হিমালয় নয় এটা আমার পরিচিত সেই লাল দেওয়াল।ততখনে আমি পৌছে গেলাম সেখানে।ইট পাথরের শহরে লাল দেওয়াল দেখেও যে মনে প্রশান্তি আসে আজকের আগে হয়তো বুজতে পারি নি।লাল দেওয়ালের মাঝে অনেক খন হাঁটার পর আমি যা দেখলাম তার জন্য সত্যি আমি প্রস্তুত ছিলাম না। আমি গুন গুন করে গান গাইছি আর হাটছি এমন সময় কেউ একজন আমার পিছন পিছন হাটছে।পিছন ফিরে তাকাতে আর তাকে খুজে পেলাম না।চারদিক কুয়াশাচ্ছন্ন তাই একটু আড়াল হলে আর দেখা যায় না।মনের ভুল ভেবে আবার হাঁটতে শুরু করলাম কিছুটা পথ অগ্রসর হলেই অনুভব করলাম। কোন এক কোমল হাত আমার হাত ধরে হাটছে,পাশ ফিরে তাকাতেই আবার উধাও সেই হাত! আমি যতটা ভয় পেয়েছি তার থেকে বেশি অনুভবে হারিয়ে গেছি, এত কোমল হাতের স্পর্শ আমার হাত হয়তো কখনো পায়নি!কে ছিল এই কুয়াশাচ্ছন্ন কোমলমতি?
সত্যি কি কেউ ছিল?
থাকলে কে ছিল?
নাকি শুধুই কল্পনা?
ভাবনার রাজ্যে হারিয়ে যাওয়া কিছু প্রশ্ন....।
বিষয়শ্রেণী: গল্প
ব্লগটি ৩২৪ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ০২/১১/২০২০

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

  • গল্পট ভালই। কিন্তু কুয়াশাচ্ছন্ন। কী বোঝাতে চাছেন তা গল্পে পরিস্কার নয়।
  • সুন্দর গল্প কিন্তু অস্পষ্ট।
  • শ.ম. শহীদ ০৩/১১/২০২০
    দারুণ লাগলো। শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জানাই।
  • সুন্দর গল্প
  • ফয়জুল মহী ০২/১১/২০২০
    নন্দিত অনুভূতি চলনসই প্রকাশ ll
 
Quantcast