www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

নাট্য সংলাপ

তারুন্য বিষয়শ্রেণী: অন্যান্য-
(নাট্য সংলাপ: চরিত্র- ১। বিভা ২।সাজিদ)
**********

(স্থান-বিভাদের বাগান বাড়ি: সাজিদের আসার অপেক্ষায় বিভা অস্থির; পায়চারি করেছ বিভা, হঠাৎই সাজিদের আগমন- হাপাতে হাপাতে বিভাকে প্রশ্ন-)


সাজিদ: বিভা,  কেন এত জরুরী তলব হৃদয় রানী? বিকেলে তো এমনিতেই দেখা হতো। ওহ! জানো আমি অনেক ভয় পেয়ে গেছিলাম। ভাবলাম আবার সে রকম কিছু নাতো? আহ..উফ...

বিভা: সাজিদ, তুমি না পুরুষ মানুষ? পুরুষদের এভাবে ভয় পেলে চলবে? ''ভয়কে করো জয়''- এই মুলমন্ত্র নিয়ে সামনে আগাতে হবে। সাজিদ.....

সাজিদ: বিভা আমাকে বাঁচালে। আমি সত‌্যিই অনেক ভয় পেয়েছিলাম। একটা অজানা ভয়, কিছু একটা হারাবার ভয়।

বিভা: শান্ত হও সাজিদ। একটু বুঝতে চেষ্টা কর। জানো.......

সাজিদ: হ্যাঁ, বল বিভা বল। চুপ করে থেকোনা। আমাকে বল।

বিভা: সা..জি...দ। (আর কিছু বলতে পারছে না, চোখে পানি টলমল) হাতটা সাজিদের দিকে বাড়াতেই সাজিদ অবাক হয়ে (বিভাকে প্রশ্ন....)।


সাজিদ: বিভা, এটা কি তোমার হাতে? এটা কিসের আংটি বিভা? আমায় সত্যি করে বল, না হয়  আমি কিন্তু মরে যাব। (সাজিদ কাঁদেছ.......)।

বিভা: বলছি সাজিদ, বলছি। এটা বলার জন্যই তো তোমাকে ডেকেছি। শান্ত হও, আমি সব তোমাকে বলছি।

সাজিদ: কি আর বলবে আমাকে?  আমি সব বুঝে গেছি বিভা, আমি সব বুঝে গেছি।

(অঝোরে কাঁদছে দু'জন, পুরো বাগান বাড়িটা স্তব্ধ; শব্দহীন ওরা, কিন্তু অশ্রুভরা চোখ। সাজিদের হাতে একটা প্যাকেট গুজে দেয় বিভা। সেটি হাতে নিয়ে সাজিদ তাকিয়ে থাকে দূর আকাশের পানে আর বিভা মিলিয়ে যায় জীবনের আড়ালে)।






***************** The End***************
বিষয়শ্রেণী: অন্যান্য
ব্লগটি ৪৩২ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ১৬/০৫/২০১৬

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

  • মধু মঙ্গল সিনহা ১০/০৪/২০১৭
    ভালো ছিল।
  • জমবে নাটক! জমবে সংলাপ!! জমবে তারুণ্য!!!
  • নাটিকাটি জমলো না ভাই। সংলাপ লিখে একবার নিজে বলে দেখতে হয়।তাতে সংলাপের বাস্তবতা বোঝা যায়। তাছাড়া নাটকিয়তা কম। নাট্য সংলাপে যে চমক আশা করা যায় তার অভাব আছে। ভবিষ্যতে ভালো লিখবেন , আশা রাখি। তারুণ্যে স্বাগত।
    • প্রিয় বন্ধু, একজন ভালো সমালোচক হিসেবে আপনাকে ধন্যবাদ।
      পর সমাচার! আপনি হয়ত বুঝতে পারেননি দু'টি ছোট প্রাণের সংক্ষিপ্ত কাহীনিটি. ওদের হাতে সময় কম। (আর বিভার হাতে আংটি দেখেই সাজিদ বুজে যায় ওর বিয়ে সম্পন্ন হয়ে গেছে)। আসলে এ ভয় ওদের মধ্যে আগে থেকেই ছিল বিধায় সংলাপটি সহেজই শেষ হয়ে যায় (একজন আরেক জনকে খুব তাড়াতাড়ি বুঝতে পারায়)।
      অসংখ্য ধন্যবাদ বন্ধু!!!
      লিখুন, মন্তব্য করুন আর সংঙ্গে থেকে উৎসাহ দিন।
 
Quantcast