www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

ওআইসির উইমেন মিডিয়া অবজাভেটরি

দ্য অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন (ওআইসি) উইমেন মিডিয়া অবজারভেটরি প্রতিষ্ঠার পদক্ষেপ নিয়েছে।
গণমাধ্যমে ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রের নারীদের জন্য অনুকূল পরিবেশ ও পদ্ধতির অভাব রয়েছে,যা গণমাধ্যমে নারীদের অগ্রগতির পথে বাধা হিসেবে কাজ করছে।
গণমাধ্যমে নারীদের জন্য অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি ও জাতিসংঘ পরিচালিত গ্লোবাল মিডিয়া মনিটরিং প্রজেক্ট (জিএমএমপি)-এ অংশগ্রহণে আরো অধিকসংখ্যক সদস্যরাষ্ট্রকে উৎসাহিত করাই এই অবজারভেটরির লক্ষ্য। খবর বার্তা সংস্থা সিনহুয়ার।
গণমাধ্যমে নারীদের অগ্রগতির প্রতি সমর্থনে মুসলিম দেশগুলোর ভূমিকাকে তুলে ধরাও এই প্রকল্পের অন্যতম উদ্দেশ্য।
ওআইসি’র তথ্য বিভাগের পরিচালক মাহা আকিল জানান, নারী বিষয়ক বিশেষ প্রতিবেদন ও ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রগুলোর গণমাধ্যমে নারীদের ভূমিকা নিয়ে উইমেন মিডিয়া অবজারভেটরি কাজ করবে।
তিনি বলেন, অবজারভেটরি বিভিন্ন ক্ষেত্রে মুসলিম নারীদের অর্জন ও সাফল্যের কথা তুলে ধরবে। পাশাপাশি গুরুত্বের সঙ্গে ইসলামে নারীদের অবস্থানের ওপরও প্রতিবেদন প্রকাশ করবে।
তিনি আরো বলেন, গণমাধ্যমে কিভাবে সবচেয়ে ভালভাবে নারী ক্ষমতায়নের চর্চা করা সম্ভব সে ব্যাপারে অবজারভেটরি পথনির্দেশনা দেবে।
এছাড়া নারীরা যেখানে সন্ত্রাসের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হচ্ছে সেখানে বৈষম্য মোকাবেলায় এটি দিক নির্দেশনা দেবে।
তিনি আরো বলেন, ‘ওআইসি সদস্যরাষ্ট্রগুলোর যেসব নারী সেরা প্রতিবেদন ও গণমাধ্যমে সফলতা অর্জন করেছেন তাদের জন্য উইমিন মিডিয়া পুরস্কার দেয়ার বিষয়টিও বিবেচনায় রয়েছে। এছাড়া ওআইসি সদস্যরাষ্ট্রগুলোর গণমাধ্যমে নারীদের অবস্থান সুদৃঢ় করার লক্ষ্যে যেসব প্রতিষ্ঠান কাজ করে যাচ্ছে তাদেরকে আর্থিক সহায়তা প্রদানের বিষয়টিও ভেবে দেখা হচ্ছে।’
উল্লেখ্য, চলতি মাসে ওআইসি তথ্যমন্ত্রীদের ইসলামিক সম্মেলনের ১১তম অধিবেশন জেদ্দায় অনুষ্ঠিত হয়। এতে উইমেন মিডিয়া অবজারভেটরি প্রতিষ্ঠাসহ গণমাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নের বিষয়ে একটি প্রস্তাব পেশ করা হয়।
বিষয়শ্রেণী: সংবাদ
ব্লগটি ৩৭৯ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ২৮/১২/২০১৬

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

 
Quantcast