www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

পথ শিশু

কচিকচি অঙ্গ প্রত্যঙ্গের উজ্জ্বলতা মসৃণতা,                              ধুলোয় ধুলোয় কেমন যেন মলিন হয়ে গেছে।                       তার কন্ঠস্বর কেমন যেন বিকৃত  মনে হয়।                                                                             সেদিন আমি কাঁদতে পারিনি,                                                   যখন মাঝে মাঝে রাস্তা দিয়ে হাটতে থাকি তখন চোখে পড়ে দরিদ্রতর কিছু শিশুর শুকনো মুখ।                                     গায়ের পোশাক ছেড়া,ধুলোয় জরাজীর্ণ।                                                                                                          চুলগুলো পুষ্টিহীনতায় হলুদাভ রং ধারণ করেছে।                    দেহের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ প্রত্যঙ্গে নেই কোন মহীয়সীর আদর যত্নের  প্রতিচ্ছবিতারপরও..ওরা হাসে খেলে প্রাণভরে ।             ওদের মধ্যে নেই কোন কষ্টবোধ কারণ,                                সুখের ছোঁয়া ওরা কোন দিনও পায়নি।                              ওরা কেউ "মা"শব্দের সাথে পরিচিতও নয়,                       মা বলে ডাকার সুযোগ কখনো হয়নি তাদের।
 কি আশ্চর্য কথা!আমি অবাক হই।

From # Facebook
বিষয়শ্রেণী: কবিতা
ব্লগটি ৭১২ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ০৭/০৩/২০১৭

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

  • সুন্দর লিখেছেন।
  • বেশ চিন্তাশীলতা লেখায়
  • মধু মঙ্গল সিনহা ১৬/০৪/২০১৭
    সুন্দর লেখা।
  • যাদব চৌধুুরী ০৪/০৪/২০১৭
    পথশিশু, মা পরিত্যক্ত, অবহেলা, অনাদর গা সওয়া হয়ে গেছে তাদের l মুখ শুকনো, অঙ্গ প্রত্যঙ্গ ধুলোয় ধুলোয় মলিন, গলা কর্কশ, ছেঁড়া পোশাক, পুষ্টিহীনতায় হলুদ চুল, চেহারায় নেই আদর পাওয়া পরিচর্যার আভাস - দরিদ্র অনাথ শিশুদের ঐ বর্ননা রাখার পর কবি লক্ষ্য করছেন এত নেতিবাচকতার মধ্যেও তাদের মনে নেই কষ্টের কোনো বোধ এবং ধুলায়, মাটিতে প্রাণপ্রাচুর্যে হাসে, খেলে l
    অনাথ পথশিশুদের এই পর্যবেক্ষণে এবং তার সত্যনিষ্ঠ প্রকাশে কবি মানবজীবনের কিছু রহস্য উন্মোচন করেছেন l সুখ এক অনন্য অনুভূতি এবং তার স্বাদ আস্বাদন রহস্যে ঘেরা l অনেক প্রাচুর্যের মধ্যে, পরিচর্যার মধ্যে বাস করেও কষ্টবোধ মানুষকে পীড়া দেয়, সুখ থাকে অধরা; তখন চারপাশে হাজারো নাই এর মধ্যেও এই দরিদ্র অনাথ শিশুদের কষ্টবোধ স্পর্শ করতে পারে নি l শাসনহীন, বাধা-বন্ধনহীন, সম্পর্কবিহীন অনাবিল জীবন যাপনে তারা পেয়েছে বিরল অনাসক্তি ভাব যা তাদের কষ্ট, অ-সুখ বোধ থেকে দূরে রেখেছে l
    সুখ বস্তুসুখ প্রাপ্তিনির্ভর নয় l সুখ আদর, পরিচর্যা, ভালবাসাযুক্ত সম্পর্ক-নির্ভর নয় l বরং এগুলিই হচ্ছে পৃথিবীর যত দুঃখ, অশান্তি, অ-সুখের কারণ l যাকে ভালবাসি, যাকে স্নেহ করি - তার অনিষ্ট আশঙ্কায় মন সদা সন্ত্রস্ত l আর কোনো সম্পর্কের বাঁধন নেই বলে এই পথশিশুগুলি এত নির্দায়, এত নির্ভার, এত নিশ্চিন্ত - তাই মনে নেই কষ্ট, হাসে খেলে প্রাণভর l
    গভীর মমত্ববোধ কবিতাটিকে এক ভিন্ন মাত্রা দিয়েছে l
    সুন্দর একটি কবিতা উপহার দেবার জন্য কবিকে ধন্যবাদ l
    তবু সবশেষে বলব, ছন্দ ব্যবহারের দুর্বলতা, কিছু শব্দ ও শব্দাংশের বাড়তি প্রয়োগ এবং কঠিন ও সহজ শব্দাবলীর পাশাপাশি সহাবস্থানে কবিতাটির পাঠে একটু বিঘ্ন সৃষ্টি করেছে l
  • ভালো লাগলো এই মমত্ববোধ।
  • ভালো লেখা।
  • বাঃ ...
  • সাইদুর রহমান ০৮/০৩/২০১৭
    খুব ভালো উপস্থাপনা।
  • মধু মঙ্গল সিনহা ০৮/০৩/২০১৭
    ভালো।
 
Quantcast