www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

ধর্যশীল-৩

(সন্ধ্যায়)
অফিস ছুটি হয়ে গেছে রাস্তার বাতি গুলো জ্বলে উঠেছে,চৈতি ভিড়ের মধ্যে এক পাশে রাস্তা দাঁড়িয়ে বাসের জন্য অপেক্ষা করছে,হঠাৎ আরিফ এসে পাশে দাড়ায়ে, চৈতি একবার আরিফের দিকে, তাকালো,কিন্তু খেল করলো না আরিফকে, তখন আরিফ মোবাইল ফোনে কথা বলায়ে মগ্ন,বাস এসে থাকলো,যাত্রীরা তারাহুরা করে বসে উঠে পরলো,বাসের ভিতরে তেমন কোনো যাত্রী ছিল না, চৈতি বাসের খালি সিটে যেয়ে বসলো,ভাগ্যের কি অপরূপ লীলাখেলা, আরিফ বাসের ভিতরে চৈতির ঠিক, পাশের খালি সিটাতে বসে পরলো,বাস সেরে দিলো,বাস চলছে,
তার আপন গতিতে ।
(বাস চলছে)
আরিফ হঠাৎ পাশে বসা মেয়েটির দিকে তাকালো,তাকাতেই, সে অবাক,সেই মেয়েটি যে কি না, ফাস্ট ফুডের দোকানের তার ব্যাগ, রেখে গিয়েছিল,
আরিফ:আরে আপনি, "What a Coincidence".
চৈতি আরিফের দিকে তাকালো,আপনি যে ফাস্ট ফুডের দোকানে আমার ফেলে আসা ব্যাগ,
আমাকে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন ।
আরিফ:জি, কেমন আছে ?
চৈতি:ভালো আছি, আপনি?
আরিফ:বেশ ভালো আছি, তা এখানে,কোনো কাজে এসেছিলেন?
চৈতি:না,আমার অফিস বাংলামোটরে ।
আরিফ:তাই, আমারও, অফিস এখানে, কোন অফিস ?
চৈতি:"দৈনিক দিনকাল"পত্রিকা ।
আরিফ: OMG, এটা তো আমার অফিস,আমি ওখানে Job করি, মিডিয়া সাংবাদিক,মিডিয়ার খবর কভার করি,প্রায় ৫ বছর ধরে কাজ করছি ।
চৈতিও বেশ অবাক হয়ে বলো,আমি Creative Design Finance section সবে মাত্র ঢুকেছি, আমার মাত্র দুইদিন হয়েছে ।
আরিফ:যা হোক,আপনি আমার অফিসের কালিক,ভাগ্যের কি অপূর্ব নিদর্শন দেখেন ।
By the way আপনি থাকেন কোথায় ?
চৈতি:লালমাটিয়া
আরিফ:আমি মিরপুর-১ ।
চৈতি হাসছে আর বলছে,হুট্ করে আপনার সাথে দেখা হয়ে গেলো আবার আমরা একই অফিস জব করি,সব কিছু মিলিয়ে আমার কাছে কেমন যেন,স্বপ্নের মতো লাগছে,
আরিফ:লাগাতেই স্বাভাবিক ।
রাস্তায় বাস ট্রাফিক জ্যামের দাঁড়িয়ে আছে,দুইজনের ভিতরে কথা চলছে,এবং চলছে হাসাহাসি,জ্যাম ছেড়ে বাস চলতে শুরু করলো,বাস চলতে চলতে লালমাটিয়া বাস স্ট্যান্ড এসে থামলো ।
চৈতি আরিফ কাছে থেকে বিদায়ে নিয়ে বাস থেকে অন্য যাত্রীদের সাথে নেমে পরলো ।
(চৈতির বাসা )
বাবার রুম চৈতি তার বাবাকে ঔষুধ খাওয়াতে এলো
চৈতি:বাবা ঔষুধ গুলো খেয়ে নাও ।
চৈতির বাবা (হুমায়ন কবির):কিরে মা, মুখটা এতো সূক্ষ্ণ মনে হয়েছে, অফিসে ঠিক মতো খাবার খাচ্ছতো ?
চৈতি:বাবা, আমি ঠিক মতো খাবার খাই ।
বাবা:আমার চোখের ভুল হতে পারে,মা, নিজের স্বাস্থ্যের প্রতি যত্নশীল হও ।
মা (মমতা খানম )রুমের ভিতরে প্রবেশ করলো এবং বললো মেয়েকে খাবার কথা বলছো,আর ওই দিকে তোমার ছোট ছেলে,খাবার না খেয়ে, Assignment করছে, আমি কতবার বললাম, খাবার খেয়ে তারপর পড়াশোনা কর, সে শুনলনা আমাকে বলে " তার ক্ষিদে নেই সে নাকি খুব ব্যাস্ত Assignment নিয়ে
"চৈতি মা তুমি একটু বলে দেখো ।
চৈতি:ঠিক আছে মা,আমি বলছি ।
বিষয়শ্রেণী: গল্প
ব্লগটি ১৪২ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ০৪/০৯/২০১৮

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

  • লিখন মাহমুদ ০৮/০৯/২০১৮
    ধারাবাহিকতা........
  • মধু মঙ্গল সিনহা ০৬/০৯/২০১৮
    দারুন
  • conversation বেশ জমলো!
  • শাহানাজ সুলতানা ০৫/০৯/২০১৮
    ভালো হয়েছে, অনেক বানান ভুল আছে দেখে নিবেন।
 
Quantcast