www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

এবং তোমার প্রেম (পর্ব -১)

সোহান:চলে যায় প্লিজ। আমি তোমাকে আমি পছন্দ করিনা,তুমি আমার ধরণের না,উল্লুপুটু জীবন আমার ভালো লাগেনা,আমি একাই থাকতে চাই ।
নাদিয়া:আমি তোমাকে ছেড়ে যেতে পারবো না ।
সোহান:কি?
নাদিয়া:তুমি আমাকে ছেড়ে যেতে বলেও আমি তোমাকে ছেড়ে যেতে পারবো না ।
তোমার কাছ থেকে দূরে নিজেকে সরিয়ে রাখবো কিন্তু তোমাকে ভুলতে পারবো না ।
সোহান:আমার মাথা ।
সোহান মেসেন্জারে চ্যাট অফ করে অফলাইনে চলে গেলো ।
নাদিয়া মেসেঞ্জার লিখলো ।
"সোহান আমার কথা শুনো কোথায় গেলে?"
কথা গুলো লিখে নাদিয়া সাথে সাথে
অফলাইনে চলে যায় ।
সেদিন রাতে নাদিয়া একটুও ঘুমাতে পারলো না,তার বালিশটা ভিজে গেছিলো তার চোখের পানিতে ।
নাদিয়া মনে মনে বলছে "সাথী তুমি আমাকে যেতে বলেছো, কিন্তু আমি তো তোমাকে কোনদিনও ছেড়ে যাবো না, কারণ আমি যে তোমাকে ভালবাসি, যাকে ভালোবাসা যায় ,সে তাকে ছেড়ে যেতে পারে না।তুমি আমাকে অপছন্দ করো,শুনে খুব কষ্ট হয়েছে আমার । তুমি আমাকে
মিস করলো না আমি জানি কিন্তু
তুমি,আমাকে একদিন খুব মিস করবে ।
নাদিয়ার ফেইসবুক ব্যবহার করা সেদিনের পর থেকে ছেড়ে দিলো,অন্যদিকে সোহান ঠিকই ফেইসবুক ব্যবহার করেছে । এক পর এক মেয়েদের সাথে নিজেকে জড়িয়ে ফেলছে ।
প্রতিদিন নাদিয়া সোহানের ফোনের জন্য অপেক্ষায় করে কিন্তু সোহানের কোন ফোন আসে না ।নাদিয়ার চোখের পানি প্রায় ঝরে সোহানের জন্য,এক পর্যায়ে নাদিয়া সোহানের ফোনের আশা একেবারে ছেড়ে দেয় ।
(অনেকদিন পর)
সোহান তার বন্ধুদের মাঝে বসা,তার মন উদাসীন,চেহারায় বিষন্নতার ছাপ,মুখ ভরা দাড়ি জাগিয়েছে ।
কি যেন নেই তার জীবনে,সে চারিদিকে কেবল নাদিয়াকে খুঁজছে ভিতরে ভিতরে অন্তর জ্বালায়ে জ্বলে পুড়ে নিঃশেষ হয়ে যাচ্ছে,এতদিন ধরে সে খেলই করেনি যে নাদিয়া আর ফেইসবুক ব্যবহার করে না,কিন্তু সোহান তার নিজের ফেইসবুক ঠিকি একটিভ রেখেছে কিন্তু সোহানের নতুন কোন পোস্ট নেই প্রায় দুই মাস থেকে ।
নাদিয়ার চলে গেছে প্রায় ৮ মাস হয়ে গেলো ।
এই তো তিন মাস আগেও সোহান আড্ডা আর ফুর্তি নিয়ে মেতে ছিল,বন্ধু বান্দবকে নিয়ে,খুব ব্যাস্ততার মাঝে তার দিন কাটতো ।
তখন তো নাদিয়া কথা তার একটুও মনে হয়নি ।
এখন সে বুঝছে নাদিয়ার ভালোবাসা তার জীবনে কি ছিল, সেই ভালোবাসা সোহানের জীবনকে পাল্টে দিয়েছে সেই ভালোবাসা তার জীবনে অনেক বড় আশীর্বাদ, অনেক বড় পাওনা ।
সোহান লেকের পানির দিকে তাকিয়ে আছে,এক দৃষ্টিতে ।
ইমরান সোহানের বন্ধু সোহানকে জিজ্ঞাসা করলো,
সোহান কি হয়েছে বেশ কিছুদিন থেকে দেখছি তুই বিষন্ন ছন্নছাড়া,আমরা সব লক্ষ করছি কিন্তু তোকে এসবের কিছুই বলছিনা ।
মিদুল সোহানের আরেক বন্ধু ।
মিদুল:আরে মামা,ও প্রেমে পড়েছে ।
সোহানের মুখে কোন কথা নেই, নিশ্চুপ হয়ে শুধু লেকের পানির দিকে তাকিয়ে আছে ।
সোহানের আরেক বন্ধু সাইফ ।
সাইফ:আমি বুঝেছি কার প্রেমে পরে তুই হাবুডুবু খাচ্ছিস শ্রাবন্তী,ওই দোস্ত,ঠিক বলেছি ?
সোহান উঠে দাঁড়ালো ।
সোহান:না,আমি শ্রাবন্তীকে পছন্দ করি না ।
অন্য বন্ধু
রাফাত:তাহলে তুই,শ্রাবন্তীর পিছু পিছু ঘুরতি কেন,শ্রাবন্তীর জন্য দিওয়ানা ছিলি এতদিন,আর এখন বলছিস পছন্দ করিস না, তোর কি ভিমরুতী ধরেছে কেন?
সোহান উঠে চলে গেলো বন্ধুদের মাঝ থেকে ।
---চলবে----
বিষয়শ্রেণী: গল্প
ব্লগটি ৭১০ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ২৫/১২/২০১৭

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

 
Quantcast