www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

শিক্ষক দিবসের কিছু কথা

১৯৬২ সালের ৫ ই সেপ্টেম্বর ভারতবর্ষের সকল শিক্ষক দের প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানাতে প্রথম শিক্ষক দিবস উদযাপন করা হয়। এক কথায় বলা যেতে পারে, ছাত্রছাত্রী এবং শিক্ষক শিক্ষিকাদের মধ্যের গুরু-শিষ্য সম্পর্ককে আরও দৃড় করার লক্ষ্যে শিক্ষক দিবস উদযাপন করা হয়।

১) একটা বিপ্লবের সংস্পর্শে এলে যেমন একজন আদর্শ বিপ্লবী হওয়া যাই ঠিক তেমনি একটা সুন্দর শিক্ষার সংস্পর্শে এলে একজন আর্দশ সুশিক্ষিত ব্যক্তি হওয়া সম্ভব। আর এই সুন্দর শিক্ষাটাকে আমাদের কাছে যে মানুষটা পৌঁচ্ছে দেন, তিনিই আমাদের প্রিয় শিক্ষক। আর সেজন্যই হয়ত বলা হয়, শিক্ষা যদি জাতির মেরুদন্ড হয় তাহলে শিক্ষক সেই জাতির হৃদস্পন্দন।

২) শিক্ষা সম্পর্কে একবার রবি ঠাকুর বলেছিলেন, " তাকেই শ্রেষ্ঠ শিক্ষা বলি যা কেবলমাত্র শিক্ষা পরিবেশন করে না, বরং যা বিশ্ব সত্তার সাথে সামঞ্জস্য রেখে আমাদের জীবনকে গড়ে তোলে। আর সেজন্যই তিনি গতানুগতিক শিক্ষাকে তীব্র আক্রমন করে বলেছেন, এই শিক্ষা জোর করে বাইরে থেকে চালিয়ে দেওয়া কৃত্তিম শিক্ষা যার সঙ্গে জীবনের এবং ছাত্রছাত্রীদের কোনো সম্পর্ক নেই।

৩) আমার প্রথম কান্না যার কোলে মাথা রেখে, আমার প্রথম উচ্চারিত যে শব্দ আমাকে সাত্বনা দেয়, আমার প্রথম ভালোবাসা যে মানুষটিকে ঘিরে, আমার সকল অনুভূতির অংশিদার যে মানুষটি সেই আমার প্রথম শিক্ষিকা, সকল মায়ের প্রতি রইলো অফুরন্ত ভালোবাসা।


৪) ভক্তকবি কবীর তার একটা দোঁহাতে লিখেছিলেন,
" গুরু গোবিন্দ দৌউ খড়ে, কাকে লাগৌ পায়েঁ,
বলিহারি গুরু আপনে, গোবিন্দ দিয়ৌ বতায়। "
অর্থাৎ, শিক্ষক এবং অনন্ত জ্ঞান ভান্ডারের প্রতীক ঈশ্বর দুজনেই যদি একসাথে সামনে এসে দাঁড়ায়, তাহলে কাকে প্রথম প্রণাম করার উচিত ?
এই প্রশ্নের উত্তরে কবীর বলেছেন, " অবশ্যই শিক্ষককেই প্রথম প্রণাম করা উচিত কারণ অনন্ত জ্ঞান লাভের পথ তিনিই প্রথম প্রদর্শন করেন।



৫) শিক্ষক মহাশয় ছাত্রকে পড়াচ্ছেন, A for Apple, B for Ball, C for Cat. কিন্তু ছাত্রটি বলছে, C for ম্যাও। শিক্ষক যতবার বলছেন, C for Cat, ছাত্রটি ততবার বলছে, C for ম্যাও ... । তখন শিক্ষক মহাশয় একটু মুচকি হেসে ছেলেটির গোছালো চুলগুলোকে একটু আগোছালো করে দিয়ে বললো, " C for ম্যাও, আর ম্যাও for Cat ......
এরকম ভাবেই কখনও কখনও শিক্ষকদের বুঝি শিশু হতে হয়!

৬) যখন খুব ছোটো ছিলাম, তখন সবাই জিজ্ঞাসা করত মা বাবার মধ্যে কাকে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসি! তখন নিঃসন্দেহে বলতাম, মাকে খুব ভালোবাসি কারণ বাবাকে কখনও খুব কাছ থেকে ভালোবাসতে দেখিনি। বাবা মানেই ছিল এক ভয়ের জায়গা। কিন্তু পরে একটু বড়ো হলে বুঝলাম, বাবা মানে সেই মানুষটা যার ভালোবাসা বুঝতে গেলে প্রচুর অনুভূতির প্রয়োজন। বাবা মানে সেই বটবৃক্ষ যে নিজে রোদে পুড়ে আমাকে ছায়া দান করে। আমার প্রিয় সেই সকল বাবাদের প্রতি রইলো অসীম ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা।


৭) শিক্ষকদের কখনও কখনও বোধ হয় বন্ধুও হতে হয় যে মানুষটির কাছে একটা ছেলেটা নির্ভয়ে বলতে পারবে জীবনের কিছু সমস্যার কথা, আর শিক্ষক মহাশয় ঠিক বন্ধুর মতো পাশে এসে বলবে, " জীবনের যত বড়ো হবে, তত বেশি সমস্যা এসে জড়ো হবে। আর হেরে না গিয়ে সেই সমস্যার মোকাবেলা করতে হবে। " ছেলেটা যেন শূন্যস্থানেও একটা হাত খুঁজে পায় উঠে দাঁড়ানোর জন্য।


৮) যখনই নদীর ধারে দাঁড়াই, তখনই মনে হয় একটু বেখেয়ালী হলে মন্দ হত না। কখনও সন্ধ্যেবেলা খোলা আকাশের নীচে দাঁড়িয়ে একদল বককে উড়তে যেতে দেখি তখন মনে হয়, জীবনের সমস্ত ব্যস্ততাকে ভুলে আরও একটু মুক্তির প্রয়োজন। যখনই কোনো পাহাড় বা পর্বত দেখি তখন খুব মনে হয় এবার একটু মাথা উঁচু করে সম্মানের সাথে বাঁচা উচিত।

৯) শিক্ষক দের সাথে ছাত্র ছাত্রীদের সম্পর্ক টা বুঝি এমনই হয়, যতদিন পর্যন্ত সেই মানুষটির সাথে হাত ধরে জীবনের পথে এগিয়ে যাই ততদিন পর্যন্ত কোনোদিন ভেবে দেখা হয় না, মানুষটা না থাকলে কি করতাম। সেজন্যই বোধ হয় A. P. J ABDUL KALAM বলেছিলেন, " Your best teacher is your last mistake. "

সমাপ্ত
বিষয়শ্রেণী: প্রবন্ধ
ব্লগটি ৬৯ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ১২/০৯/২০২২

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

 
Quantcast