www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

নীতিন ভাল নেই(চতুর্থ পর্ব)

মাঝরাস্তায় শুয়ে থাকাটা আশ্চর্য হলেও অসম্ভব নয়। একটি ছেলে মাঝরাস্তায় শুয়ে আছে আর তাকে ঘিরে চারপাশে দাঁড়িয়ে আছে একপাল লোক। ছেলেটির চোখ সোজা আকাশের দিকে। অনেকেই অনেক কথা জিজ্ঞেস করছে, কিন্তু সে কোন উত্তর দিচ্ছে না। একজন তাকে টেনে তুলতে গিয়েছিল। এমন সময়ই বেজে ওঠল তার ফোন। বাড়ি থেকে ফোন এসেছে। খবর বেশি ভাল না। বউ প্রতিবেশীর সাথে ভেগেছে। এমন খবর পেয়েও লোকটা বাড়িতে গেল না। ধপ করে বসে পড়ল ছেলেটার পায়ের কাছে। এখনও কেঁদে কেঁদে মাফ চাইছে লোকটা। ছেলেটি নির্বিকার।
পরিস্থিতির জটিলতায় সকলে কেমন যেন ঘাবড়ে গেছে। নানা জনে নানা কথা বলছে। কেউ বলছে এ নিশ্চয় বড় কোন সাধক টাইপের কিছু। কেউ আবার বলছে হাফপ্যান্ট আর লাল স্যান্ডো গ্যাঞ্জি পড়ে, চোখে কাল সানগ্লাস লাগিয়ে এ কেমন সাধনা হচ্ছে। এরকম নানাজনে নানা কথা বলেই চলেছে। চারিদিকে যানজট লেগে গেছে। ট্রাফিক পুলিশও জনতার মাঝে দাঁড়িয়ে ছেলেটির দিকে তাকিয়ে আছে। এগিয়ে যাওয়ার সাহস তারও হয়নি। সে থানায় ফোন করে সব জানিয়েছে। থানা থেকে এক গাড়ি ভর্তি পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তারা এখনো ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছোয়নি।
বিষয়শ্রেণী: গল্প
ব্লগটি ৩৪ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ১৪/০৯/২০১৮

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

 
Quantcast