www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

প্রতিভার মনোভার

গ্রামের একটি ছেলে নামতার শুভ। ছেলেটির পড়াশুনা করছে!

আচরণ ছোট্ট বেলা থেকেই চঞ্চলতা প্রাদুর্ভাব বেশি একটা লক্ষ্য করা যায় না।
স্রষ্টা কাউকে না কাউকে কোনো গুন দিয়ে তৈরি করেন।

ছেলেটি ছিলো সুন্দর অধিক নির্বোধ!!
কথায় বলে , চাও যদি পাও শকুনের থাবা থেকে
খাবার কুড়িয়ে নাও।
পাড়ার সকল ছেলেদের মাঝে নিজেও বেশিত্ব একটা চালাক মনে করল না।
সব কিছু সহজ ভাবে!! ছেলেটি হ্যন্ডসামও বটে

বলছিলাম প্রথম গুনের কথা!! দশটার ছেলের মতো খুবই মেধাবী ছাত্র।।
সকলের সকল তুচ্ছাতিতুচ্ছ তখন তার সমৃদ্ধির
জ্ঞান দিয়ে এড়িয়ে চলল।

একদিন কোন চক্রের বিষতন্র ডুবে গেল।
আশ্চর্য ব্যাপার দাঁড়িয়ে গেলো সকল বিশ্বাসী
বন্ধু বান্ধব কাছে তার বিপরীত মিথ্যা অজুহাত
সাক্ষ্য পেল। একদা ছেলেটির বিশ্বাসের আত্মা মর্যাদা হানী হলো!

একটি প্রিয় মানুষ পেল তাকে পাওয়া নিয়া
কুন্ঠা বোধ করল।

তখন নিজে একাই চলার ফেরা করতে শুরু করল। একদা দেখেতে পেল জীবনের চলার ক্ষেত্রে পাশাপাশি কাউকে এড়িয়ে চলা যায় না।
তার সকল কিছুই ভুলে সবার সাথে চলতে শুরু করল!! সমাজের কাছে দাম পাচ্ছে না।
সর্বদা সদাচুত্ব হয়ে পড়ল।

কোন ভাষন বক্তব্যর কাজে তার মেধার
মুল্য তাচ্ছিল্য দৃপ্ত রূপ ধারন করাতেই।
একদা হতাশ হয়ে পড়ল ।।
খেলার মাঠে চরম অবহেলার মাঝে তাকে বিদায় করে দিল
ভীষণ মন খারাপ হতে লাগল।

পরীক্ষার অর্জন নিয়ে আড়াল থেকে আবার কেউ প্রশংসা করে যাচ্ছে।
তার কথা বড় বুঝের লোক শোনেনা!!
নিজের প্রতিভা তুলে ধরতে কোন মতে পারছিল না!!
খেলার মাঝে তাকে বাদ রাখাতে এলকার
ছোট্ট শিশুদের নিয়ে খেলা ধুলা করতে শুরু লাগল।নিষ্পাপ প্রাণ শিশুদের মিশতে শুরু করল।

শিশু গুলো উচ্চতর ভবিষ্যতের পথ দেখিয়ে তাদের
খেলা শিখিয়ে তাদের মন জয় করে ফেলল।
এখন সেও তাদের সাথে খেলছে!
শিশুরা তাকে বুঝতে শুরু করল তাদের বন্ধু হয়ে গেল।।
অবোশষে তার একটি আত্মপরিচয়
ফিরে পেল!! প্রিয় জনও ফিরে আসল।
বিষয়শ্রেণী: গল্প
ব্লগটি ৪৩ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ০৮/০২/২০১৯

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

 
Quantcast