www.tarunyo.com

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

বৈশাখী দুপর

বৈশাখী দুপুর

আব্দুল মান্নান মল্লিক

গাছের ছায়ায় বসে যখন দূর দিগন্তে চায়।
যে দিকে চায় নিঝুম পুরী সাড়া শব্দ নাই।।
তরতর করে লম্ব কিরণ্ ফাকাঁ মাঠের পর।
খেলছে বুঝি লহরী যেন অসার আড়ম্বর।।
রাখাল ছেলে গাছের তলে চরতে থাকে গাভী।
নলখাগড়ার বাঁশি বাজায় বেসুর তালে ভাবি।।
ঘুঘু পাখি বসলো উড়ে শুকনো গাছের মাথায়।
ঘুরে ঘুরে ডাকছে কেবল নীরস চোখে তাকাই।।
ক্লান্ত পাখি কোথা হতে বসলো ডালে উড়ে।
হা করে সে হাঁপায় শুধু তৃষ্ণায় ছট্ফট্ করে।।
শুষ্ক দেহে সইবে কত জলের সন্ধান করে।
মুর্মূষু হয়ে ঝিমিয়ে পড়ে ক্রন্দন বন্ধ করে।।
ডোবা জলা শুষ্ক ফাটল কোথাও অল্প কাদা।
মাছরাঙাটা বসে ডালে নিরুপায় এক হাঁদা।।
মলীন মুখে দিন গুনে যায় চাতক পাখির দল।
জল পিপাসায় দেহ পুড়ে ছাই চক্ষে নাই জল।।
পুষ্প কাননে শুকনো পুষ্পে মৌমাছি না আসে।
এদের দুঃখ ঘুচাবেনা এই দুপুর বৈশাখ মাসে।।
তাকিয়ে দেখি কড়ই গাছে শুকনো ফল ঝুলে।
তপ্ত সমীর লাগছে গায়ে ঝনঝন করে দোলে।।
ফটিক জল ডাকছে পাখি আতা গাছের ডালে।
জল কোথা সে পাবে এখন খরা গ্রীষ্মের কালে।।
মৌমাছিরা শুকনো হয়ে খুজছে শীতল ঠাঁই।
নলকূপ্ পাড়ে বসলো আসি বিরত হল তাই।।
খালের সঙ্গে মধুর মিলন গাঙের ভালবাসা।
বৈশাখীর এই কিরণ্ তাপে মিলন সর্বনাশা।।
বিষয়শ্রেণী: কবিতা
ব্লগটি ৬০৪ বার পঠিত হয়েছে।
প্রকাশের তারিখ: ২৭/০৯/২০১৫

মন্তব্য যোগ করুন

এই লেখার উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

  • আশিক আহমেদ ০৩/১১/২০১৫
    ভালো লাগলো।
  • অসাধারণ কবিতা।
  • ভাষা ঠিক করুন , ছন্দ ও।
    • ইংরেজি ও বাংলা মিশিয়ে, দারুণ চন্দ হয়, বাঃ।
      • উত্তর পড়ে মনে হচ্ছে , মন্তব্য বুঝতে পারেন নি। কবিতায় অনেক ক্ষেত্রে অন্তমিল নেই , ছন্দ পতন হয়েছে। তারুণ্যে লেখার গুনগত মান , দেখা হয়। তাই দায়িত্ব নিয়ে বলছি , কবিতার গুনগত মানের দিকে নজর দিন।
  • রাশেদ খাঁন ২৭/০৯/২০১৫
    ভালো লাগলো।
  • শমসের শেখ ২৭/০৯/২০১৫
    বৈশাখের চিএ তুলে ধরা হয়েছে এই কবিতার মাধ্যমে ভালোই লাগলো
  • ফয়সাল শাহ ২৭/০৯/২০১৫
    Nice
  • nice post
  • পরশ ২৭/০৯/২০১৫
    ভালো লিখেছেন ভাই। চালিয়ে যান।
 
Quantcast